প্রতিকুল পরিবেশেও ইসলামের দাওয়াত প্রতিটি ছাত্রের কাছে পৌঁছাতে হবে

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত বলেছেন, যে কোন ত্যাগ স্বীকার করে হলেও আল্লাহর এই জমিনে দ্বীন প্রতিষ্ঠায় ইসলামী আন্দোলনের কর্মীরা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। এই দ্বীন কায়েমের পূর্বশর্ত হচ্ছে দাওয়াতি কাজের মাধ্যমে মানুষকে আল্লাহর পথে আহবান করা। তাই প্রতিকুল পরিবেশেও ইসলামের দাওয়াত প্রতিটি ছাত্রের কাছে পৌঁছাতে হবে।

১৭ রমাদান, ঐতিহাসিক বদর দিবস।

ইতিহাসে যতগুলো যুদ্ধ মুসলমানদের সাথে বিভিন্ন সম্প্রদায় বা জাতিগোষ্ঠীর কিংবা বিধর্মীদের সাথে সংঘটিত হয়েছে, তার মধ্যে বদরের যুদ্ধ ছিল মুসলমানদের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, বদরের যুদ্ধের তাৎপর্য ঐতিহাসিক। এ যুদ্ধটি ছিল ইতিহাস নির্ধারণকারী একটি লড়াই। বদরের যুদ্ধে যদি মুসলমানেরা পরাজিত হতেন, তাহলে দ্বীন ইসলামে মহান আল্লাহকে ডাকার মতো কোনো লোক এই পৃথিবীতে থাকত কি না তা কেবল সেই মহান সৃষ্টিকর্তা ছাড়া আর কারো জানা ছিল না

কুরআনের দাওয়াত ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়েছেন বলেই আল্লামা সাঈদীকে হত্যা করতে চাইছে সরকার

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত বলেন, আল্লামা সাঈদীকে অন্যায় ভাবে কারাগারে আটক রেখে দেশের মানুষকে কুরআনের দাওয়াত থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে। তিনি রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার। কুরআনের দাওয়াত ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়েছেন বলেই আল্লামা সাঈদীকে হত্যা করতে চাইছে সরকার।

ইসলামী মুল্যবোধই পারে তরুণ প্রজন্মকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করতে

কেন্দ্রীয় সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত বলেন, ছাত্রশিবির ঘুণেধরা এই সমাজ ব্যবস্থার পরিবর্তে ইসলামী মুল্যবোধের ভিত্তিতে একটি সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আমাদের লক্ষ্য পরবর্তী প্রজন্মকে ইসলামী মুল্যবোধের আলোকে গড়ে তোলা। কারণ শুধুমাত্র ইসলামী মুল্যবোধই পারে দেশ গড়ার কারিগর তরুণ প্রজন্মকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করতে।

‘গঠনমূলক পথ চলাই ছাত্রশিবিরের ভিত্তিকে মজবুত করেছে’

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত বলেছেন, সমৃদ্ধ জাতি গঠনে আদর্শিক নেতৃত্ব তৈরীর লক্ষ্য নিয়ে ছাত্রশিবির যাত্রা শুরু করেছিল। আমাদের পথচলা আজ বহুদূর পর্যন্ত বিস্তৃত হয়েছে। এ অগ্রযাত্রাকে দমিয়ে দিতে নানা মহল থেকে ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। কিন্তু তাদের কোন চক্রান্তই সফল হয়নি। গঠনমূলক পথ চলাই ছাত্রশিবিরের ভিত্তিকে মজবুত করেছে।