শহীদ হাফিজুর রহমান

২১ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬ - ১৯ মে ২০১৬ | ২৩০

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির

শাহাদাতের ঘটনা

১৯.৫.২০১৬ , শহীদ হাফিজুর রহমানকে গত ২৪.০৪.১৬ তারিখে রাবি শিক্ষক হত্যার ঘটনায় নিজেদের ব্যর্থতা আড়াল করতে জটিল থ্যালাসেমিয়া রোগে আক্রান্ত রাবির ছাত্রশিবির নেতা হাফিজুর রহমানকে সম্পূর্ণ অমানবিকভাবে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। অথচ সে স্বাভাবিকভাবে চলাফেরাই করতে পারতো না এবং প্রতি তিন মাস পর পর তার রক্ত পরিবর্তন করতে হয়। এ বিষয়টি পরিবার ও সংগঠনের পক্ষ থেকে তুলে ধরে তার মুক্তি দাবী করা হলেও প্রশাসন তাতে কর্ণপাত করেনি। উল্টো রাবি শিক্ষক হত্যার মত স্পর্শকাতর মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখায় পুলিশ। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।কারাগারেও তাকে উপযুক্ত চিকিৎসা প্রদান করা হয়নি। অবশেষে কারান্তরীন থাকা অবস্থায় ১৯.৫.১৬ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মৃত্যুবরণ করেন ।

এক নজরে

পুরোনাম

শহীদ হাফিজুর রহমান

পিতা

মোঃ হোসেন আলী

মাতা

হালিমা বেগম

জন্ম তারিখ

ফেব্রুয়ারি ২১, ১৯৯৬

ভাই বোন

তিন ভাই ও ১ বোন

স্থায়ী ঠিকানা

ছোটবন গ্রাম, সপুরা বোয়ালিয়া, রাজশাহী

সাংগঠনিক মান

সদস্য প্রার্থী

সর্বশেষ পড়ালেখা

অনার্স ২য় বর্ষ, লোক প্রশাষন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

শাহাদাতের স্থান

Rmc কনডেম সেল।ড: রেজাউল করিম হত্যা মামলায় জেলে থাকা কালিন অসুস্থ অবস্থায়।


ছবি অ্যালবাম: শহীদ হাফিজুর রহমান


চিঠি - জামা - ব্যবহৃত দ্রব্যাদি

ছবি অ্যালবাম: শহীদ হাফিজুর রহমান