আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের শান্তিপূর্ণ অবস্থানে পুলিশ ও ছাত্রলীগের হামলার প্রতিবাদ

কোটা পদ্ধতি সংস্কারের দাবীতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উপর পুলিশ ও ছাত্রলীগের যৌথ হামলার প্রতিবাদ জানিয়ে বিবৃতি প্রদান করেছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির।

আতাউর রহমানের ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ

জামায়াতে ইসলামীর সাবেক কেন্দ্রীয় নায়েবে আমীর, রাজশাহী মহানগরীর সাবেক আমীর ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আতাউর রহমানের ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির।

গাজা উপত্যকায় নির্বিচারে মুসলমানদের হত্যার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ

গাজা উপত্যকায় ইসরাইলের বর্বর হামলা এবং নিরপরাধ মুসলমানদের হত্যার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির।

নেপালগামী বিমান দূর্ঘটনায় ৫০জন নিহতের ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ

এক যৌথ শোকবার্তায় বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত ও সেক্রেটারি জেনারেল মোবারক হোসাইন বলেন, ঢাকা থেকে রওনা দিয়ে নেপালের ত্রিভূবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিএস ২১১ ফ্লাইটের বিমানটি নেপালের স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ২০ মিনিটে অবতরণকালে বিধ্বস্ত হয়। এ ভয়াবহ দূর্ঘটনায় এ পর্যন্ত ৫০ নিহত হয়েছেন। আরোহীদের মধ্যে ৩২জন বাংলাদেশি। মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। আহত অনেককে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।এ মর্মান্তিক দূর্ঘটনায় গোটা জাতি শোকাহত। আমরা আহতদের উন্নত চিকিৎসা প্রদানে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহবান জানাচ্ছি। একই সাথে নিহতদের পরিবার-পরিজনদের উপযুক্ত ক্ষতিপুরণ প্রদান করার জন্যও সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত আমিরসহ ১১নেতাকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ এবং তাদের মুক্তির দাবীতে  বিবৃতি

অন্যায় ভাবে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত আমির অধ্যাপক মুজিবুর রহমানসহ ১১নেতাকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ ও অবিলম্বে তাদের মুক্তির দাবী জানিয়ে বিবৃতি প্রদান করেছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির।

সড়ক দূর্ঘটনায় সাথী ফরহাদ হোসেনের ইন্তেকালে শোক প্রকাশ

শিক্ষা সফর থেকে ফেরার পথে মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় ছাত্রশিবির চাঁদপুর জেলা শাখার সাথী ফরহাদ হোসেনের ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির।

শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ দলের বিজয়ে ছাত্রশিবিরের অভিনন্দন

ত্রিদেশীয় টি-২০ সিরিজ নিদাহাস ট্রফিতে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশে ক্রিকেট দলের ৫ উইকেটে ঐতিহাসিক বিজয় অর্জন করায় বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে অভিনন্দন জানিয়েছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির।

নোয়াখালী থেকে ৪০জন শিবির নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার এবং অস্ত্র উদ্ধার নাটকের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ

এক যৌথ প্রতিবাদ বার্তায় ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত ও সেক্রেটারি জেনারেল মোবারক হোসাইন বলেন, সরকার ছাত্রশিবিরকে আদর্শিকভাবে মোকাবেলা করতে ব্যর্থ হয়ে রাষ্ট্রীয় শক্তি ব্যবহার করে দমন নিপীড়ণ ও ষড়যন্ত্রের পথ বেছে নিয়েছে। গতকাল নোয়াখালীর মাইজদী থেকে কোন কারণ ছাড়াই ক্যারিয়ার গাইডলাইন প্রোগ্রাম থেকে সম্পূর্ণ অন্যায় ভাবে গ্রেপ্তার করা হয়েছে ৪০জন নেতাকর্মীকে। গ্রেপ্তারের পর পুলিশ নিরপরাধ শিবির নেতাকর্মীদের জড়িয়ে পেট্রোল বোমা, কিরিচ ও জিহাদী বইয়ের নাটক মঞ্চায়ন করে। যা সম্পূর্ণ পরিকল্পিত ও সাজানো। এটি ছিল একটি ক্যারিয়ার গাইডলাইন মূলক প্রোগ্রাম এবং সেখান থেকে পুলিশ কিছুই পায়নি। তবুও ছাত্রশিবিরের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য এবং মেধাবী ছাত্রদের ভবিষ্যৎ ধ্বংস করে দেয়ার জন্য পুলিশ এ অস্ত্র উদ্ধার নাটকের অবতারণা করেছে। এসব অস্ত্র উদ্ধার নাটকের সাথে পুলিশের সরাসরি সম্পৃক্ততা থাকলেও ছাত্রশিবিরের নেতাকর্মীদের দূরতম কোন সম্পর্ক নেই। পরিকল্পিত ভাবে নিরপরাধ মেধাবী ছাত্রদের প্রতি পুলিশের এই দায়িত্বহীন আচরণ কোনভাবেই গ্রহনযোগ্য নয়। নিরীহ ছাত্রদের অন্যায় ভাবে আটকের পর এমন নিকৃষ্ট নাটক সুগভীর ষড়যন্ত্রের অংশ বলে সচেতন দেশবাসী মনে করে। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

রাবি’তে শিবির কর্মীসহ ছাত্রদের উপর ছাত্রলীগের হামলা ও বর্বর নির্যাতনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ

এক যৌথ প্রতিবাদ বার্তায় ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত ও সেক্রেটারি জেনারেল মোবারক হোসাইন বলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে আবারো বর্বরতার নৃশংস নজীর স্থাপন করেছে ছাত্রলীগ সন্ত্রাসীরা। গতকাল রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার এলাকা থেকে রাবি ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া ও সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রানুর নেতৃত্বে ২০/২৫ জন সন্ত্রাসী কোন কারন ছাড়াই নিরাপরাদ সাধারণ শিক্ষার্থী ও শিবিরকর্মীসহ মোট ১৬ জন শিক্ষার্থীর উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় শিক্ষার্থীদের সাথে থাকা নগদ অর্থ, মোবাইলসহ মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের হামলা ভাংচুরের প্রতিবাদ ও সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারের দাবী জানিয়ে বিবৃতি

এক যৌথ প্রতিবাদ বার্তায় ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত ও সেক্রেটারি জেনারেল মোবারক হোসাইন বলেন, ছাত্রলীগের প্রতি সরকার, পুলিশ ও প্রশাসনের অনৈতিক মদদের কারণেই চবি’তে আবারো তান্ডবলীলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ সন্ত্রাসীরা। গতকাল রাতে তারা নিজেদের মধ্যে গুলাগুলি করেছে। এসময় পুলিশ ছাত্রলীগ নিয়ন্ত্রিত হলে অভিযান চালিয়ে কাটারাইফেলসহ আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করেছে। আজ আবারো তারা সংঘবদ্ধ হয়ে ক্যাম্পাসে তান্ডব চালায়। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রক্টর, সময় টেলিভিশনের গাড়ীসহ ১৩টি গাড়ী ভাংচুর করে। শাটল ট্রেনের দুটি বগি ক্ষতিগ্রস্ত করে। ৩ জন প্রক্টরের সামনেই তারা কলা অনুষদের ডিনের রুম ভাংচুর করে। হামলার পর ক্ষোভ জানিয়ে কলা অনুষদের ডীন সাংবাদিকদের বলেছেন, গত ২৩ বছরের ইতিহাসে তিনি ক্যাম্পাসে এমন তান্ডবলীলা দেখেননি। অথচ এখন পর্যন্ত সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্য ক্যাম্পাসে অবস্থান করলেও তাদের বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করছেনা পুলিশ। বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে চবি’তে নিজেদের মধ্যে শতাধিক সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছে। এতে বার বার ছাত্রলীগ নিজেদের, প্রতিপক্ষ ছাত্রসংগঠনের নেতাকর্মী ও সাধারণ ছাত্রদেরকেও রক্তাক্ত হতে হয়েছে। বহুবার ক্যাম্পাস বন্ধ হয়ে শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হয়েছে। আজও অবরোধের নামে সাধারণ শিক্ষার্থীদের জিম্মি করে ক্যাম্পাসে শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত করার ষড়যন্ত্র করছে। এর আগেও ঐতিহ্যবাহী এমসি কলেজের ছাত্রাবাস পুড়িয়ে দিয়ে প্রকাশ্য উল্লাস করেছিল ছাত্রলীগ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন বিশ^বিদ্যালয়ে ছাত্র খুন এবং সম্মানিত শিক্ষকদের মারধর ও লাঞ্চিত করেছে ছাত্রলীগ সন্ত্রাসীরা। ক্যাম্পাস গুলোকে অবৈধ অস্ত্রের মিনি ক্যান্টনমেন্টে পরিণত করেছে। অথচ আজ পর্যন্ত কোনটিরই দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হয়নি। ছাত্রলীগের প্রতি এই অব্যাহত অনৈতিক মদদই তাদের বার বার তান্ডবলীলায় উৎসাহ যোগাচ্ছে।