সংবিধান

ভূমিকা

যেহেতু আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি যে-
একঃ নিখিল বিশ্বের সৃষ্টি, এর স্থিতি, স্থায়িত্ব, সংরক্ষণ, ক্রমবিকাশ এবং ক্রমোন্নতি একমাত্র সেই আল্লাহর দান, যিনি অসীম জ্ঞান ও বিচক্ষণতার অধিকারী। যাঁর ইচ্ছা ও আদেশ নিরঙ্কুশভাবে আসমান ও জমিনের প্রতিটি অণু-পরমাণুর মধ্যে সক্রিয় রয়েছে, যাঁর হাতে রয়েছে জীবিকার চাবিকাঠি ও জীবন-মৃত্যুর বাগডোর এবং যিনি সমস্ত শক্তি ও ক্ষমতার উৎস।
দুইঃ পৃথিবীর জীবনই মানব-জীবনের শেষ নয়, মৃত্যুর পর মানুষকে আখেরাতের অনন্ত জীবনে প্রবেশ করতে হবে। মহাপরাক্রান্ত আল্লাহর সামনে তার পার্থিব জীবনের প্রতিটি মুহূর্ত ও কাজের হিসেব দিতে হবে। পার্থিব জীবনে কেবলমাত্র আল্লাহ প্রদত্ত বিধান অনুযায়ী গোটা জীবন পরিচালিত করলেই আখেরাতের সাফল্য ও কৃতকার্যতা অর্জিত হতে পারে।
তিনঃ আল্লাহ যুগে যুগে মানব জাতির পথ নির্দেশের জন্য নির্ভুল জ্ঞানসহ নবী ও রাসূলদের এ দুনিয়ায় প্রেরণ করেছেন। আল্লাহ প্রদত্ত ও রাসূল (সা) প্রদর্শিত জীবন-বিধানই মানব জাতির ‘সিরাতুল মুস্তাকিম’ সহজ ও নির্ভুল চলার পথ। বিশ্বনবী মুহাম্মদ (সা) সর্বশেষ নবী। তাঁর আনীত ‘আল-কুরআন’ এবং উপস্থাপিত জীবনাদর্শই গোটা মানব জাতিকে কিয়ামত পর্যন্ত সঠিক পথের সন্ধান দেবে।
চারঃ ইসলামের বিধানগুলোকে পূর্ণভাবে গ্রহণ করে নেয়ার মধ্যেই নিহিত রয়েছে মানবতার মুক্তি ও কল্যাণ। যখনই কৃষ্টি-সভ্যতা এবং সমাজব্যবস্থাকে ইসলামের মূলনীতি থেকে অপসারিত করে প্রতিষ্ঠিত করা হয়েছে, তখনই মানবতাকে অকল্যাণ ও ধ্বংসের দিকে ঠেলে দেয়া হয়েছে; এবং পাঁচঃ ইসলামী জীবন-বিধানের প্রতি উন্নাসিকতাই বর্তমান জগতের সমস্ত অশান্তির মূল কারণ এবং ইসলামী জীবন-বিধানের অনুসরণই এই শোচনীয় অবস্থা দূর করার একমাত্র উপায়।
সেহেতু-
আমরা ইসলামী বিপ্লব সাধনের প্রচেষ্টায় তৎপর ছাত্রগণ নিজেদেরকে একটি সংগঠনে সংঘবদ্ধ করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করছি যে-
একঃ আল্লাহর আনুগত্য এবং রাসূল (রা) এর অনুসরণই আমাদের জীবনের একমাত্র উদ্দেশ্য হবে। আমরা সকল প্রকার আনুগত্য ও দাসত্ব পরিত্যাগ করে একমাত্র আল্লাহর আনুগত্য ও দাসত্ব অবলম্বন করব। সর্বপ্রকার মত, পথ ও বিধান ত্যাগ করে একমাত্র রাসূল (স) এর আদর্শ জীবন ও পদাঙ্ক অনুসরণ করব। আমাদের এ আনুগত্য ও অনুসরণ জীবনের কোন একটি বিভাগের জন্য হবে না, বরং জীবনের প্রতিটি দিক ও বিভাগে পরিব্যাপ্ত হবে।
দুইঃ আমরা আমাদের জীবনকে ইসলামের আলোকে উদ্ভাসিত করে তুলব এবং মানবসমাজকে আল্লাহর আনুগত্য ও রাসূল (সা) এর অনুসরণের দিকে ডাকব। আমাদের সংগ্রাম, সার্বিক প্রচেষ্টা-একমাত্র এ উদ্দেশ্যেই নিয়োজিত থাকবে, যেন পৃথিবীর বুকে আল্লাহর বাণী সর্বোচ্চ মর্যাদা লাভ করে, রাসূল (সা) এর প্রদর্শিত বিধান পৃথিবীর বুকে সঠিক অর্থে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং মানব জাতি ইসলামের ভিত্তিতে তাদের সামগ্রিক জীবন গড়ে তুলতে সক্ষম হয়। এবং
তিনঃ বিশ্বব্যাপী ইসলামী বিপ্লবের পদক্ষেপ হিসেবে আমরা সর্বপ্রথম বাংলাদেশে ইসলামী আদর্শ বাস্তবায়নের জন্য আমাদের সমস্ত শক্তি ও সামর্থ্য নিয়োজিত করব।